Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

১। মানব সম্পদ উন্নয়নের কার্যক্রম গ্রহনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় দক্ষ জনবল গড়ে তোলা।

২। সমগ্র দেশের খাবার পানির গুনগতমান পরীক্ষা, পরিবীক্ষন ও পর্যবেক্ষন।

৩। ভূ-গর্ভস্থ ও ভূ-পৃষ্ঠস্থ নিরাপদ পানির উৎস অনুসন্ধান।

৪। নিরাপদ পানি ও স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানার এবং এনভায়রমেন্টাল স্যানিটেশন সংক্রান্ত স্বাস্থ্য পালন সম্পর্কে জনগনকে উদ্বুদ্ধ করন।

৫। আর্সেনিক সংক্রান্ত ও অন্যান্য সমস্যা সংকূ্ল এলাকায় (লবনাক্ত, পাথুর, পাহাড়ি ইত্যাদি) নতুন লাগসই প্রযুক্তি উদ্ভাবনের মাধ্যমে নিরাপদ পানি সরবরাহের ব্যবস্থা গ্রহন।

৬। পানি সরবরাহ ও এনভায়রনমেন্টাল স্যানিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নে স্বল্প ব্যয়ে লাগসই প্রযুক্তি অনুসন্ধান, গবেষনা ও উন্নয়ন।

৭। আপদকালীন (বন্যা, সাইক্নো্ন ইত্যাদি) সময়ে জরুরী ভিত্তিতে পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা করা।

৮। তথ্য কেন্দ্র স্থাপনের মাধ্যমে পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন সেক্টরের তথ্য ব্যবস্থাপনা সমৃদ্ধি ও আধুনিকিকরন।

৯। স্থানীয় সরকার, বেসরকারী উদ্যোক্তা, বেসরকারী সংস্থা এবংসিবিও সমূহকে পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা উন্নয়নে কারিগরী পরামর্শ, তথ্য সরবরাহ ও প্রশিক্ষন প্রদান।

১০। নিরাপদ খাবার পানি নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় প্রতিরোধ মূলক কার্যক্রম গ্রহণ। এজন্য পর্যায়ক্রমে দেশের সকল পানি সরবরাহ ব্যবস্থায় ওয়াটার সেফটি পান (WSP) বাস্তবায়ন।